সন্ধ্যা ৭:২৮, ১৪ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

প্রেমিকাকে নিয়ে পালালেন বর, উপস্থিত মেহমানের সঙ্গে বিয়ে কনের !

লাইফস্টাইল ডেস্ক : মাঝে মাঝে বাস্তবতা হার মানায় সবকিছুকে। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে। দুই ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে একজনের প্রেমিকা হাজির হন। বিয়ে না করলে আত্মীয়স্বজনের সামনেই বিষ খাবেন বলেন। হঠাৎ উপস্থিত হওয়া প্রেমিকাকে নিয়ে সেই ভাই বিয়ের আসর থেকেই পালান। এ সময় তার যাকে বিয়ে করার কথা ছিল সেই মেয়েটির পরিবার তৎক্ষণাৎ বিয়ের জন্য নতুন পাত্র খোঁজা শুরু করেন। এরপর মেহমানদের ভেতর থেকে নতুন পাত্রও খুঁজে পাওয়া যায়। সেখানেই বিয়ে হয় তাদের। সময় টিভি

একই আসরে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল দুই ভাই নবীন ও অশোকের। সিন্ধু নামে পেশায় এক চিকিৎসকের সঙ্গে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলছিল নবীনের। কিন্তু বিয়ের আগমুহূর্তে হঠাৎ হাজির হন নবীনের প্রেমিকা।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কর্ণাটকে। বিয়ের আসরে প্রেমিকার উপস্থিতিতে বিচলিত হন নবীন। নবীন যদি তাকে বিয়ে না করে অন্য কাউকে বিয়ে করে, তবে আমন্ত্রিতদের সামনে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার হুমকি দেন প্রেমিকা। পরে তাকে নিয়ে বিয়ের আসর থেকে পালান নবীন।

ভারতের সংবাদমাধ্যম জানায়, এই সময় নবীনের ভাই অশোক বিয়ে করে নিলেও বসেই থাকেন সিন্ধু। নিজের দুর্ভাগ্যের কথা ভেবে একপর্যায়ে কেঁদে ফেলেন ওই কনে। শেষ পর্যন্ত পরিস্থিতি সামাল দিতে তখনই সিন্ধুর বাড়ির লোক পাত্র খুঁজতে শুরু করেন।

সৌভাগ্যবশত সে সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন চন্দ্রাপ্পা নামে বেঙ্গালুরু মেট্রোপলিটন ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের এক কন্ডাক্টর। তাকেই দেওয়া হয় বিয়ের প্রস্তাব। আর তিনি দেরি না করে তাদের প্রস্তাবে যান চন্দ্রাপ্পা। এরপর ওই মণ্ডপেই বিয়ে হয়ে যায় সিন্ধুর। শুধু পাত্র পরিবর্তন হয়। তবে এই ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় অবাক হয়েছেন অনেকেই।

======