সকাল ১১:৫১, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

করোনায় তেলের দর হ্রাসে সৌদি আরবের ক্ষতি ২৭ বিলিয়ন ডলার

ডেস্ক রিপোর্ট: সৌদি যুবরাজ বিন সালমান বলেছেন শুধু তেলের দর কমে যাওয়ায় তার দেশের ক্ষতি হয়েছে ১’শ বিলিয়ন রিয়াল। গত বছর সৌদি বাজেটে ৮৩৩ বিলিয়ন রিয়াল রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল যার মধ্যে ৫১৩ বিলিয়ন রিয়াল ছিল তেল থেকে আয় বাবদ। করোনাভাইরাসের কারণে তেলে দর হ্রাসে সৌদি আরবের আয় কমেছে ৪১০ বিলিয়ন রিয়াল। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে সৌদি সরকারি কর্মচারীদের বেতন দেয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। এ বেতন বাবদ সৌদি সরকারের খরচ করতে হয় ৫০৪ বিলিয়ন রিয়াল। অর্থাৎ তেল বহির্ভুত আয় সৌদি সরকারকে বৃদ্ধি করতে হচ্ছে ৩৬০ বিলিয়ন রিয়াল। সৌদি গেজেট/গালফ নিউজ/অয়েল প্রাইস ডটকম

সৌদি যুবরাজ বলেন করোনাভাইরাস সত্ত্বেও নাগরিকদের বেশিরভাগ বেতন, ভাতা ও বোনাস দিতে সক্ষম হয়েছি। কোভিড মোকাবেলায় চিকিৎসা ও অন্যান্য সহায়তা বাবদ যথাক্রমে ১৮৮ ও ১৩৭ বিলিয়ন রিয়াল খরচ হয়েছে। এছাড়া পর্যটন, স্পোর্টস, শিল্প, কৃষি, যোগাযোগ, মহাকাশ ও খনিজ খাতে ব্যয় বেড়েছে। কিন্তু তেলের দর কমে যাওয়ায় সৌদি অর্থনীতিতে অপ্রত্যাশীত ধকল সামাল দিতে হচ্ছে।

আগামি ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ওপেক ও ওপেক বহির্ভুত তেল রফতানি দেশগুলো দিনে ৭.৭ মিলিয়ন ব্যারেল তেল কম উৎপাদন করছে। চাহিদা কমে যাওয়া তেলের দর যাতে আরো হ্রাস না পায় সেজন্যে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এছাড়া আগামী বছর দিনে ৫.৮ মিলিয়ন ব্যারেল তেল কম উৎপাদনেরও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আশার কথা কোভিড ভ্যাকসিন বাজারে আসার সম্ভাবনায় আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে তেলের দর ১৫ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পাওয়ার আভাস দিয়েছেন বাজার বিশ্লেষকরা।