রাত ১১:১৮, ১০ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:

আরএনএ টিকা কয়েক বছর কোভিড সুরক্ষা দেবে, দাবি মডার্নার

ডেস্ক রিপোর্ট : মার্কিন ওষুধ কোম্পানি মডার্না জানিয়েছে, মেসেঞ্জার আরএনএ বা বার্তাবহ আরএনএ সিকুয়েন্সকে কাজে লাগিয়ে তৈরি টিকা কয়েক বছর ধরে কোভি সুরক্ষা দিতে পারবে। টিকার ডোজে তৈরি অ্যান্টিবডি বহুদিন টিকবে বলেও দাবি এই মার্কিন ফার্মা জায়ান্টের। টাইমস অব আইরিন

মডার্নার প্রধান নির্বাহি স্টিফেন বানসাল এমনও দাবি করেছেন তাদের টিকা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেন থেকেও সুরক্ষা দিতে পারবে।

এমআরএনএ সিকুয়েন্সকে কাজে লাগিয়ে তৈরি এই ভ্যাকসিনের নাম এমআরএনএ১২৭৩। এই ভ্যাকসিন তৈরি হচ্ছে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকসিয়াস ডিজিজ -এর ভ্যাকসিন রিসার্চ সেন্টারের বিজ্ঞানীদের তত্ত্বাবধানে। এমআরএনএ হল শরীরের বার্তাবাহক। এর কাজ কোন কোষে প্রোটিন তৈরি হচ্ছে, কোথায় কী রাসায়নিক বদল হচ্ছে সবকিছুর জিনগত তথ্য বা ‘জেনেটিক কোড’ জোগাড় করে সেটা শরীরের প্রয়োজনীয় জায়গায় পৌঁছে দেওয়া।

এরফলে এই বার্তাবহ আরএনএ দিয়ে তৈরি ভ্যাকসিন শরীরের কোষগুলিকে অ্যান্টি-ভাইরাল প্রোটিন তৈরি করতে উৎসাহ দেবে। এই ভ্যাকসিন মানুষের দেহকোষে ঢুকে করোনাভাইরাসের মতো প্রোটিন তৈরি করার নির্দেশ দেবে। সেই প্রোটিনের বাইরে খোলসটা হবে ঠিক সার্স-কভ-২ ভাইরাল স্ট্রেনের মতোই। অথচ করোনার মতো অতটা সংক্রামক নয়। দেহকোষ তখন এমন ধরনের প্রোটিন দেখে তার প্রতিরোধী অ্যান্টিবডি তৈরি করবে।

শরীরের মেমরি বি-সেল এই ধরনের প্রোটিনকে চিনে রাখায় রোগ প্রতিরোধ শক্তি তৈরি হবে শরীরে। বানসাল বলছেন, টিকার ডোজ শরীরে ঢুকে কাজ করতে কিছু সময় লাগে। দুটি ডোজ সম্পূর্ণ হওয়ার অন্তত ২১ থেকে ২৮ দিনের মাথায় অ্যান্টিবডি তৈরি শুরু হবে। আরএনএ প্রযুক্তিতে তৈরি টিকার ডোজে পর্যাপ্ত অ্যান্টিবডি তৈরি হবে শরীরে।