রাত ৩:০৬, ১৪ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:

‘উস্কানিমূলক ভিডিও’, নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগে ইউটিউব থেকেও নিষিদ্ধ হলেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : গুগল পরিচালিত ইউটিউব তাদের বার্তায় জানিয়েছে, নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল নূন্যতম সাত দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি অনির্দিষ্টকালের জন্য এই চ্যানেলের কোনও কনটেন্টে কমেন্ট করার বিষয়েও নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

ইউটিউবের এক মুখপাত্র বিবৃতিতে জানান, আমরা খতিয়ে দেখেছি ট্রাম্পের ইউটিউব অ্যাকাউন্টের একটি বিশেষ ভিডিও প্র্ররোচনামূলক। ভিডিওটি সরিয়ে নেয়া হয়েছে ও নীতিভঙ্গের কারণে অ্যাকাউন্টটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী আপাতত সাতদিন নতুন ভিডিও আপলোড বা লাইভস্ট্রিম করা যাবে না। সাতদিন পর আমরা আবার বিষয়টি পর্যালোচনা করবো।

ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা প্রায় ২৮ লাখ।নিউ ইয়র্ক টাইমস লিখেছে, ট্রাম্পের কয়েকটি ভিডিওতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়মের ভুয়া অভিযোগ আনা হয়েছিল।

এরআগে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির জন্য গত ৬ জানুয়ারি কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন চলাকালীন ট্রাম্পের আহ্বানে সাড়া দিয়ে তার সমর্থকরা ক্যাপিটল ভবনে ঢুকে ভাঙচুর চালায়। দাঙ্গা ও সংঘাতে নিহত হন এক পুলিশ সদস্যসহ ৫জন।

সহিংসতা উস্কে দেয়ার অভিযোগে টুইটার তার অ্যাকাউন্ট আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ করে। হোয়াটস অ্যাপও স্থায়ীভাবে ট্রাম্পকে বয়কটের ঘোষণা দেয়। ফেসবুক ও ইনস্ট্রাগ্রাম দুই সপ্তাহ পর্যন্ত ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট স্থগিত করে। সামাজিক মাধ্যমগুলোর এই পদক্ষেপকে ‘বাক-স্বাধীনতার ওপর হুমকি’ বলে অভিযোগ করেছেন ট্রাম্প।